রম্য গল্প: ভালোবাসার প্রতিদান

রম্য গল্প: 'ভালোবাসার প্রতিদান'

কোর্ট থেকে বের হয়ে বড় একটা নিশ্বাস নিলাম। অবশেষে ভালোই ভালোই ডিভোর্স টা হয়ে গেলো। ভাবতে অবাক লাগছে আমি এরকম একটা কাজ কত সহজে করে ফেললাম।

আমার বন্ধু-বান্ধবরা আমাকে এখন সন্দেহের চোখে দেখে। এই কিছুদিন আগেও ওদের কাছে আপন সম্পর্কে কতো ভালো ভালো কথা বলেছি। মানুষটা ছিলো ও প্রশংসা করার মতো। বিয়ের পর গত একটা বছর আমাকে আগলে রেখেছে। ঘুরে বেড়ানো, সিনেমা দেখা, অকারনে গিফ্ট নিয়ে আসা, ইচ্ছেমত শপিং, ভালোবাসা কোনকিছুরই কমতি রাখেনি সে। শুধু ঐ ব্যাপারটা ছাড়া…..।

বাবা- মা প্রথমে অনেক বুঝিয়েছিলেন, এখন শূণ্যদৃষ্টিতে ফ্যালফ্যাল করে তাকিয়ে থাকেন। তাদের হাজার প্রশ্নবাণেও ভুল করে কারণটা বলিনি। এটা কেউ বুঝবে না। আসলে কাউকে বোঝানো যাবেও না যে আমি ওকে কি পরিমাণ ভালোবাসি। ভালোবাসি বলে আজ এতো কঠিন কাজটা কত সহজে করতে পারলাম।

আপনের কথা খুব মনে পড়ছে। এক সপ্তাহ আগেও সে আমার কোলে মাথা রেখে মুখ গুজে ছিলো আর আমি তার চুলে বিলি কেটে দিয়েছিলাম। অন্ধকারেও টের পাচ্ছিলাম সে নিরবে কেদেছিলো। তবুও একবারও জানতে চাইনি কারণটা। আর তার চুলে বিলি কেটে দেয়া হবে না। রাত জেগে আর তার নিষ্পাপ ঘুমন্ত মুখটা দেখা হবে না। শোনা হবে না ওর মুখে বৌ ডাকটা । আহারে, বড়ই ভালো লাগতো যখন ও আমাকে বৌ বলে ডাকতো । বুকের মাঝে চিনচনে একটা ব্যাথা টের পেলাম, না এখনই আমি ভেংগে পড়তে পারিনা। ও যে দেখলে কষ্ট পাবে।

এক বছর আগে ওরসাথে আমার বিয়ে হয়েছিলো, বাবা-মার পছন্দের বিয়ে। ছেলে architecture , অতিশয় নম্র ভদ্র ছেলে। বিয়ের দিন রাতেই আমাকে ডেকে বলেছিলো,” শোন বৌ,তোমার চেয়ে আপন আর আমার এখন কেউ নেই।তাই তোমার কাছে কিছু লুকাবো না। বিয়ের আগে আমার জীবনে একজন ছিলো, শিমু। কিন্তু তুমি আমার মায়ের পছন্দ, তাই এ বিয়েতে মত দিয়েছি। আজ থেকে তুমিই আমার সব। তোমাকে ভালোবাসতে আমি কোন কৃপণতা করবো না।”

সে তার কথা রেখেছিলো। আমার মন সে খুব দক্ষতার সাথে জয় করেছিলো। কিন্তু সেদিন আলমারিতে পাওয়া তার ডাইরী পড়ে আমি কান্নায় ভেংগে পড়েছিলাম। ও আমাকে কখনো বুঝতে দেয়নি কিছুই। সে যে এখনো শিমুর জন্য কাদে। এখনো সেই দিন গুলো মনে করে যখন সে শিমুর সাথে ছিলো। এতো কষ্টের মাঝে ও সে তার সাথে যোগাযোগ করেনি যদি আমি কষ্ট পাই তা ভেবে। আমি ই বা কিভাবে পারি তাকে এভাবে কষ্ট পেতে দিতে । আমিও যে ওকে ভালোবাসি। সেদিনই তাই সিদ্ধান্তটা নিলাম, ওকে মুক্ত করে দেবো। এই হবে আমার ভালোবাসার প্রতিদান।

আমার জন্য তুমি কখনো কষ্ট পেয়োনা আপন। ভেবো না আমি একা আছি। কারণ আমাদের ছোট আপন আছে আমার সাথে।আর মাত্র কয়েকটি মাস অপেক্ষা। ক্ষমা করো, এই সুসংবাদটি তোমাকে বলতে পারিনি বলে।

Facebook Comment

You May Also Like