এক রাজা ও দাসির প্রেমের গল্প

king and servant

এক দেশে এক রাজা ছিলেন। রাজার দরবারে অনেক দাস, দাসি ছিল। তিনি সবার সাথে ভালো ব্যবহার করতেন কিন্তু একজন দাসিকে তিনি খুব ভালোবাসতেন। এ নিয়ে রাজমহলে অনেকেই অনেক রকম কটু মন্তব্য করতেন।

একদিন রাজার এক বন্ধু রাজাকে বললেন, ‘বন্ধু, তুমি কি জানো তোমাকে নিয়ে প্রজারা অনেক বাজে মন্তব্য করে?’

রাজা বললেন, ‘কেন?’

বন্ধু বললেন, ‘তুমি রাজ্যে এতো সুন্দরী মেয়ে থাকতে একটি সামান্য দাসির সাথে কেন সম্পর্কে জড়ালে?’

তখন রাজা বললেন, ‘একটা অনুষ্ঠানের আয়োজন করো, এই আয়োজনে রাজ্যের সব সুন্দরী মেয়েরা থাকবে। এখান থেকে যাকে আমার পছন্দ হবে তাকেই আমি বিয়ে করবো।’

কথা মতো দিন তারিখ ঠিক হলো। রাজ্যের সব সুন্দরী মেয়েরা রাজার দরবারে হাজির। এই প্রত্যাশায় যে, যদি রাজার পছন্দ হয়ে যায় তবে তার সাথে বিয়ে হবে। সময় মতো রাজা ও সেই দাসি এবং সবাই হাজির হলেন। রাজা তার সব ধন-সম্পদ, হীরা, মনি মুক্তা ইত্যাদি সবার সামনে রাখলেন আর বললেন, ‘আমি পছন্দ করবো পরে, আগে যার যা সম্পদ দরকার এখান থেকে নিয়ে নাও, তারপর আমি পছন্দ করবো কাকে আমি বিয়ে করবো।’

রাজার দরবারে যারা এসেছিলেন সবাই সবার ইচ্ছে মতো মনিমুক্তা, হীরা, টাকা-পয়সা নিতে লাগলেন। কিন্তু সেই দাসিটি কিছু না নিয়ে রাজার পোষাক ধরে রাখলেন। সবার সব কিছু যখন নেয়া শেষ হলো দেখা গেল সবাই কিছু না কিছু নিয়েছেন, কিন্তু সেই দাসি কিছুই নেন নাই। তিনি রাজার পাশে গিয়ে রাজার পোষাক ধরে আছেন।

সবাই অবাক হয়ে জিজ্ঞাস করলেন, ‘হে দাসি! তুমি তো গরিব তোমার অনেক কিছুই দরকার। কিন্তু তুমি কিছু না নিয়ে রাজার পোষাক ধরে রেখেছো কেন?’

উত্তরে দাসি বলল, ‘আপনারা তো সম্পদ নিয়েছেন, কিন্তু আমি এই সম্পদের মালিককে নিয়েছি। আমি এই সম্পদের মালিকের হয়ে যেতে চাই, যদি আমি এই সম্পদের মালিকের হয়ে যেতে পারি তবে তো সব সম্পদই আমার। তাই আমি সম্পদের মালিকের পোষাক ধরে রেখেছি।’

তখন রাজা বললেন, ‘এবার হয়তো তোমরা সবাই বুঝতে পেরেছো, আমি রাজ্যের এতো সুন্দরী রেখে কেন এই দাসিকে ভালবাসি?’

সবাই বললেন, ‘হ্যাঁ, বুঝতে পেরেছি।’

শিক্ষা:
এভাবে আমরাও দুনিয়ার সম্পদ নিয়ে ব্যাস্ত থাকি, কিন্তু আমরা একবারও চিন্তা করিনা যে, এই সম্পদের মালিক যিনি; আমরা যদি তার হয়ে যাই তবে এই দুনিয়ার সবকিছুই তো আমাদের।

তাই আসুন ..
দুনিয়ার সম্পদ নয়, সকল সম্পদের মালিক আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তায়ালাকে খোঁজ করি। যদি আমরা তাঁকেই খুঁজে পাই, যদি আমরা তাঁর ভালবাসা পেয়ে যাই তবে সেটাই তো হবে আমাদের উভয় জীবনের শ্রেষ্ঠ পাওয়া।

আল্লাহ রাব্বুল আলামীন আমাদের সবাইকে সঠিক পথে চলার তাওফিক দান করুন।।

Facebook Comment

You May Also Like