ডা: স্যামকেইলির সেই বিখ্যাত ঘটনা

doctor sam kelly

একদিন একটি গরীব ছেলে রাস্তায় হাঁট ছিলো , সে তার লেখাপড়ার খরচ জোগাড় করার জন্য ঘরে ঘরে গিয়ে বিভিন্ন জিনিস বিক্রি করতো , ছেলেটার গায়ে ছিলো একটা জীর্ন মলিন পোষাক ।

সে ভীষণ ক্ষুধার্থ ছিলো , তাই সে সিদ্ধান্ত নিলো যে চলার পথে সামনে যে বাসা পড়বে, সেখানে গিয়ে সে কিছু খাবার চাইবে ।

কিন্তু সে যখন একটা বাসায় গেলো খাবারের আশা নিয়ে , সে ঘর থেকে একজন সুন্দরী মহিলা বেরিয়ে এলেন সে খাবারের কথা বলতে ভয় পেলো সে খাবারের কথা না বলে শুধু এক গ্লাস পানি চাইলো . মহিলা ছেলেটার অবস্থা দেখে বুঝলেন যে সে ক্ষুধার্থ . তাই তিনি ছেলেটাকে একটা বড়গ্লাস দুধ এনে দিলেন ..ছেলেটা আস্তে আস্তে দুধ টুকু খেয়ে বলল,”আপনাকে আমার কত টাকা দিতে হবে এই দুধের জন্য?”

মহিলা বলল, “তোমাকে কোন কিছুই দিতে হবে না ।”

ছেলেটা বলল, “আমার মা আমাকে বলেছেন কখনো করুণার দান না নিতে ।
তাহলে আমি আপনাকে মনের অন্তস্থল থেকে ধন্যবাদ দিচ্ছি ।”

ছেলেটার নাম ছিলো স্যামকেইলি ।

স্যাম যখন দুধ খেয়ে ঐ বাড়ি থেকে বের হয়ে এলো , তখন সে শারিরিক ভাবে কিছুটা শক্তি অনুভব করলো । স্যাম এর বিধাতার উপর ছিলো অগাধ বিশ্বাস । তাছাড়া সে কখনো কিছু ভুলতো না ।

সময়ের পরিক্রমায় কেটে গেলো অনেক গুলো বছর। একদিন ঐ মহিলা মারাত্মক ভাবে অসুস্থ হয়ে পরলো ,স্থানীয় ডাক্তাররা তাকে সুস্থ করতে চেষ্টা করেও ব্যার্থ হল ।তখন তাকে পাঠানো হলো একটা বড় শহরের নামকরা হাসপাতালে. যেখানে দুলর্ভ ও মারাত্মক রোগ নিয়ে গবেষণা ও চিকিত্সা করা হয় ।ডা: স্যামকেইলি কে এই মহিলার দায়িত্ব দেওয়া হলো ।

যখন ডাঃ স্যাম কেইলি শুনলেন যে মহিলা কোন শহর থেকে এসেছেন , তার চোখের দৃষ্টিতে অদ্ভূত একটা আলো যেন জ্বলে উঠলো , তিনি তাড়াতাড়ি ঐ মহিলাকে দেখতে গেলেন । ডাক্তারের এপ্রন পরে তিনি মহিলার রুমে ঢুকলেন । এবং প্রথম দেখাতেই তিনি মহিলাকে চিনতে পারলেন।

তিনি মনে মনে সিদ্ধান্ত নিলেন যে , যেভাবেই হোক তিনি মহিলাকে বাঁচাবেনই , ঐ দিন থেকে তিনি ঐ রোগীর আলাদা ভাবে যত্ন নেওয়া শুরু করলেন ।

অনেক চেষ্টার পর মহিলাকে বাঁচানো সম্ভব হলো …

ডাঃ স্যাম কেইলি হাসপাতালের একাউন্টেন্টকে ঐ মহিলার চিকিৎসার  বিল দিতে বললেন, কারণ তার সাইন ছাড়া ঐ বিল কার্যকর হবে না , ডাঃ স্যাম কেইলি ঐ বিলের কোণায় কি যেনো লিখলেন এবং তারপর সেটা ঐ মহিলার কাছে পাঠিয়ে দিলেন ।

মহিলা ভীষণ ভয় পাচ্ছিলেন বিলটা খুলতে।কারণ তিনি জানেন যে এতো দিনে যে পরিমাণ বিল এসেছে তা তিনি সারা জীবনেও শোধ করতে পারবেননা ।

অবশেষে তিনি বিলটা খুললেন এবং বিলের পাশ দিয়ে লেখা কিছু কথা তার দৃষ্টি আকর্ষণ করলো।

তিনি পড়তে লাগলেন”আপনার চিকিৎসা খরচ হলো পুরো এক গ্লাস দুধ “
এবং বিলের নিচের সাইন করা ছিলো ডাঃ স্যাম কেইলির নাম ।

Facebook Comment

You May Also Like