রাখাল যুবক ও এক সুন্দরীর শিক্ষণীয় গল্প

একদিন এক রাখাল যুবক একটি খুব সুন্দরী যুবতী মেয়েকে দেখল। দেখেই মেয়েটিকে তার পছন্দ হয়ে গেল। রাখাল মেয়েটিকে বিয়ের প্রস্তাব দিল। মেয়েটি রাজী হয়ে গেল। দুজনে মিলে বিয়ে পড়ানোর জন্য কাজির কাছে গেল।

রূপবতী মেয়েটিকে দেখে কাজি নিজেই পছন্দ করে ফেলল। কাজি বলল “ও একজন সামান্য রাখাল, ও তোমাকে কি দিতে পারবে? আমিই তোমাকে বিয়ে করব, আমার কাছে তুমি অনেক সুখে থাকবে।” রাখাল এ কথা শুনে রেগে গেল। তার ও কাজির মধ্যে ঝগড়া লেগে গেল। এবার তাঁরা তিনজনে মিলে নালিশ নিয়ে গেল পুলিশের কাছে।

পুলিশ মেয়েটিকে দেখে বলল, “ওরা দুজনেই বাদ আমিই তোমাকে বিয়ে করব।” এবার রাখাল,কাজি ও পুলিশ এই তিনজনের মধ্যেই গোলমাল লেগে গেল। মেয়েটি এবার বলল,”ঠিক আছে এবার তোমরা তিনজনে এক কাজ কর, আমি দৌড় দিব আর তোমরা আমার পিছনে দৌড়াবে যে আমাকে প্রথমে ধরতে পারবে আমি তাকেই বিয়ে করব।” এবার মেয়েটি ছুটল এবং তাঁর পিছনে পিছনে তিনজনেই ছুট দিল।

ছুটতে ছুটতে এক সময় তাঁদের সামনে একটি গর্ত পড়ল তাঁরা ঐ গর্তের মধ্যে পড়ে গেল।

আসলে ঐ সুন্দরী যুবতি মেয়েটি হল দুনিয়া যার সৌন্দর্য আমরা যেই দেখি সেই মুগ্ধ হয়ে যাই। আর তার পেছনে পেছনে ছুটতে থাকা রাখাল, কাজি, আর পুলিস হল এই দুনিয়ার মানুষ। কিন্তু ছুটতে ছুটতে এক সময় আমাদের সামনে মৃত্যু এসে দাড়ায় এবং আমরা কবরে নিপতিত হই।

দুনিয়া ও আখিরাত দুটোই আমাদের হাতছাড়া হয়ে যায়।

What’s your Reaction?
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

You May Also Like