রূপকথার গল্প: “অতি লোভে তাঁতি নষ্ট”

angel

এক লোভী ধনী ও এক পরীর গল্প। পরী চুল গুলো ছিল অনেক লম্বা। এক লোভী ধনী এক পথে হেঁটে যাচ্ছিল। হঠাৎ এক পরীকে গাছে দেখতে পেল। আর লোকটি দেখে প্রথমত ভয় পেয়ে যায়। পরীটি লোভী ধনী লোকটিকে কাছে ডাকলেন।

পরীটি ডেকে বললেন আমি একটি বিপদে পড়েছি। আমার চুল গুলো অনেক লম্বা হওয়ার কারণে গাছের শাখার সাথে চুল গুলো আটকে যায়। লোভী ধনী লোকটি একটু চালাক প্রকৃতির ছিল। সে বুজতে পারছিল তার আরো অর্থ উপার্জন করার একটা সুযোগ রয়েছে।

সুযোগ বুজেই পরীকেই শর্ত দিয়ে বসলো বা আমার একটা ইচ্ছা পূরণ করতে হবে। তাহলে আমি তোমাকে সাহায্য করব। পরী বলল তাহলে তোমার শর্ত বা ইচ্ছার কথাটা বলতে পার। তখন লোভী ধনী লোকটি তার শর্ত ও ইচ্ছার কথাটা প্রকাশ করল।

আমি যা স্পর্শ করব তাই যেন সোনাতে রুপান্তরিত হয়ে যায় এবং পরী তার শর্ত ও ইচ্ছা মেনে নিল।

লোভী ধনী লোকটি বাড়ির দিকে ছুটে আসতে লাগলেন এবং পরী থেকে পাওয়া সেই ঘটনাটি তার স্ত্রী, ছেলে-মেয়েদের কাছে বলল। পথের মাঝে যা কিছু স্পর্শ করেছে সবই যেন সোনাতে রূপান্তরিত হয়েছিল।

বাড়ি ফেরার পর ঘটনাটি খুলে বলার পর পরিবারের সবাই তাকে অভিবাদন জানানোর জন্য দৌড়ে এল। যেই তিনি মেয়েটিকে কোলে তুলে নিলেন সাথে সাথে সোনার মূর্তি পরিণত হয়ে গেল। মহূর্তের জন্য ভুলে গেলেন যে যা কিছু স্পর্শ করবেন তাই সোনাতে রূপান্তরিত হয়ে যায়।

অবশেষে ঘটনাটি ঘটার পর তার মূর্খতা বুজতে আর বেশি বাকি রইল না। তার শর্ত বা ইচ্ছা ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য পরীকে খোঁজতে শুরু করল।

You May Also Like