Monday, May 20, 2024
Homeআরওলাইফস্টাইলচুল পড়া বন্ধে রসুনের তেলের ব্যবহার জেনে নিন

চুল পড়া বন্ধে রসুনের তেলের ব্যবহার জেনে নিন

চুল পড়া বন্ধে রসুনের তেল

খাবারের স্বাদ বাড়াতে রসুনের জুড়ি নেই। তাছাড়া রসুন স্বাস্থ্যের পক্ষেও উপকারী। শুধু তাই নয়, রূপচর্চাতেও রসুনের ব্যবহার হয়ে থাকে। যা বেশ কার্যকরও। অন্যদিকে, চুল পড়া কমাতে রসুন দারুণ কাজ করে। শুধু চুল পড়া বন্ধ নয়, নতুন চুল গজাতেও কাজ করে রসুন।

পেঁয়াজ ব্যবহারে যাদের চুল পড়া বন্ধ হচ্ছে না, তারা দ্রুত রসুন ব্যবহার করে দেখতে পারেন। কারণ দীর্ঘদিন একই উপাদান ব্যবহারে তার কার্যকারিতা কমে যায়। রসুনে থাকা জিঙ্ক, ক্যালসিয়াম, সালফার ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট মাথার ত্বকের সমস্যা কমিয়ে আনে এবং চুল পড়া রোধ করে। পাশাপাশি রসুনে থাকা ভিটামিনসমূহ সাহায্য করে নতুন চুল গজাতে।

সুস্থ চুল পেতে চাইলে যত্নশীল হতে হবে চুলের প্রতি। প্রাকৃতিক উপাদান সেক্ষেত্রে সবচাইতে উপকারী ভূমিকা পালন করে। তাই অল্প সময়ের মাঝে চুল পড়ার হার কমাতে চাইলে ব্যবহার করতে পারেন রসুনের হেয়ার প্যাক অথবা রসুনের তেল।

চলুন তবে জেনে নেয়া যাক চুলের যত্নে রসুনের দু’টি সহজ ব্যবহার সম্পর্কে-

রসুনের তেল

এই তেল তৈরি জন্য ৮ কোয়া রসুন, আধা কাপ অলিভ অয়েল ও ১টি পেঁয়াজ নিতে হবে। পেঁয়াজ ছোট টুকরা করে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। এতে রসুন যোগ করে পুনরায় ব্লেন্ড করে পেস্ট তৈরি করতে হবে।

পরে কড়াইতে আধা কাপ অলিভ অয়েল গরম করে তাতে রসুন-পেঁয়াজের পেস্ট দিয়ে দিতে হবে। মাঝারি আঁচে এ পেস্ট জ্বাল দিতে হবে, যতক্ষণ না পর্যন্ত পেস্ট বাদামি বর্ণ ধারণ করে। বাদামি বর্ণ হয়ে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে ঠাণ্ডা করতে হবে। ঠাণ্ডা হয়ে গেলে পেস্টটি ছেকে তেল বের করে নিতে হবে। এ তেল মাথার ত্বকে ভালোভাবে ম্যাসাজ করতে হবে। এরপর ৩০-৪৫ মিনিট তেল মাথায় রেখে দেয়ার পর হারবাল শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিতে হবে। সপ্তাহে ৩-৪ দিন ব্যবহার করতে হবে এই তেল।

রসুন-মধুর হেয়ার প্যাক

এই হেয়ার প্যাকটি তৈরি করতে প্রয়োজন হবে ৮ কোয়া রসুন ও ১ টেবিল চামচ মধু। প্রথমে রসুনের কোয়া থেকে রস বের করে মধুর সঙ্গে মিশিয়ে নিতে হবে। মিশ্রণটি চুলের গোড়ায় ভালোভাবে ম্যাসাজ করে ২০ মিনিটের জন্য রেখে দিতে হবে। এরপর হালকা ধাঁচের কোনো শ্যাম্পু দিয়ে চুল ভালোভাবে ধুয়ে নিতে হবে। সপ্তাহে এই হেয়ার প্যাকটি ২-৩ দিন ব্যবহার করতে হবে।

Anuprerona
Anupreronahttps://www.anuperona.com
Read your favourite literature free forever on our blogging platform.
RELATED ARTICLES

Most Popular

Recent Comments