একজন ব্যবসায়ী এবং তার গাধার গল্প!

ব্যবসায়ী এবং গাধার গল্প

একদা একটি গাধা লবণের বোঝা তার পিঠে বয়ে নিয়ে যাচ্ছিল। লবণের বোঝা গাধার পিঠের সাথে শক্ত করে বাঁধা ছিল। বোঝাটি ছিল এতভারী যে তার খুবই কষ্ট হচ্ছিল। গাধা বোঝা নিয়ে যাবার সময় একটা নদী দেখতে পেল। পিপাসায় কাতর গাধা নদীর তীরে গিয়ে পানি খেতে চাইল।

পানি খেতে গিয়ে সে নদীতে পড়ে গেল। পানির সংস্পর্শে এসে লবণের বোঝাটি একেবারে পানির মত হালকা হয়ে গেল। সে তো মহাখুশী।

ভাবল বিরাট এক আবিষ্কার করে ফেলেছে সে। নদী পার হতে গিয়ে পানিতে বসে পড়লেই যে বোঝা হালকা হয়ে যায়- এ কথা ভেবে আনন্দে সে উদ্বেলিত হয়ে পড়ে।

এরপর কিছুদিন পার হল, এবার সেই গাধাটির পিঠেই তুলার বোঝা। ক্লান্ত গাধা নদী দেখেই খুশি হয়ে উঠল। চালাকি করে নদী পার হতে গিয়ে সে হোঁচট খাওয়ার ভান করে পানিতে বসে পড়ল। কিন্তু একি? উঠে দাঁড়াতে পারছে না কেন সে? শুকনো বোঝা তো এমন ভারী ছিল না? শেষে মাথাটিও আর উঁচু করে রাখতে না পেরেপানিতে ডুবে মরে গেল গাধা।

গাধা আসলে জানত না যে লবণের বোঝা পানিতে গলে হালকা হয়ে যায়। অথচ তুলার বোঝা ভিজে হয়ে যায় আরো ভারী।

আমরা মানুষরাও ব্যক্তি জীবনে কেউ চিন্তা না করে কাজ করে অসফল। আবার কেউ চিন্তা করে কিন্তু কাজ না করে অসফল। তাই ভেবে-চিন্তে কাজের বাস্তবায়ন করলে সফলতা কুক্ষিগত করা যায়।

Facebook Comment

You May Also Like