‘আব্রাহাম লিংকন’ এর জীবনের একটি শিক্ষণীয় ঘটনা

'আব্রাহাম লিংকন' উপদেশ বাণী উক্তি

আব্রাহম লিঙ্কন-কে আপনি হয়ত অবশ্যই চেনেন। তিনি ছিলেন আমেরিকার ১৬তম রাষ্ট্রপতি। একবার লিঙ্কন তার নিজের গ্রামের কাছে একটি জনসভায় তার ভাষণ দিচ্ছিলেন। সবাই চুপচাপভাবেই তার গুরুত্বপূর্ণ কথা গুলি শুনছিলেন।

নীরবতা কাটিয়ে একজন মহিলা উপস্থিত জনসমাবেশের মধ্যে থেকে দাঁড়িয়ে চেঁচিয়ে বললেন- “আরে, এ রাষ্ট্রপতি? এ তো আমাদের গ্রামের মুচির ছেলে।”

এই কথাটি শুনে লিঙ্কন খুবই দুঃখ পেলেন। আমাদের সমাজে সবাইকে সমান চোখে দেখা হয়না। এখনও নিচু-জাত আর উঁচু জাত নিয়ে চলি আমরা। কিন্তু রাষ্ট্রপতি হওয়া সত্যেও লিঙ্কন রেগে গিয়ে তার ক্ষমতার অপব্যবহার করলেন না। তিনি বিনম্র ভাবে বললেন- “মহাশয়া, আপনি একটি খুব ভালো কাজ করলেন, যে এই এত মানুষের সাথে আমার আসল পরিচয় করিয়ে দিলেন। হ্যাঁ আমি আপনাদের গ্রামের সেই মুচিরই ছেলে। আচ্ছা আমি কি আপনাকে একটি কথা জিজ্ঞেস করতে পারি, যদি অনুমতি দেন!” মহিলাটি বলল- “হ্যাঁ অবশ্যই”।

এরপর লিঙ্কন বললেন- “একটু কষ্ট করে মনে করে দেখবেন কি, যে আমার বাবা সেদিন যে আপনার জুতো সেলাই করেছিল, সেটিতে কোনো ভুল বা ত্রুটি আছে কিনা? তিনি আপনার জুতো ঠিকমত মেরামত করে দিয়েছেন তো? তার কাজে আপনার কোনো অভিযোগ আছে কি?”

এটি শুনে মহিলাটি বলল-“না না, একদম না, তার কাজ সম্পর্কে আমার কোনো অভিযোগ নেই। সে তার কাজ খুব ভালোভাবে মন দিয়ে করে।”

এরপর লিঙ্কন বললেন- “মহাশয়া, যেরূপ আমার মুচি পিতা তার কাজে কোনো ত্রুটি রাখার চেষ্টা করেননা এবং সব কিছু ঠিকমত সারিয়ে তুলতে চেষ্টা করেন, ঠিক সেভাবেই আমি আপনাদের আশ্বস্ত করছি যে, আপনারা আমাকে রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত করে আপনাদের সেবা করার যে সুযোগ দিয়েছেন সেটিও আমি আমার বাবার মতনই একদম নিখুত এবং ত্রুটি হীন রাখার আপ্রাণ চেষ্টা করব। যাতে আমার সম্পর্কে কোনো অভিযোগ না থাকে।”

হ্যাঁ এরকমটিই ছিলেন আমেরিকার মহান রাষ্ট্রপতি আব্রাহাম লিঙ্কন। অনেক মহান ছিলেন তিনি, যার জন্যই তাকে আজও শ্রদ্ধা করা হয়। এটি কেবলমাত্র একটি উদাহরণ এরকম বহু উদাহরণ রেখে গেছেন তিনি।

বিনম্রতা এবং আত্ম-সম্মানের এক বিশেষ গুন থাকে। এই বিশেষ গুন ব্যক্তিকে মহান করে তোলে। এই বিনম্রতা এবং আত্ম-সম্মান বোধ মানুষকে আকর্ষিত করে, মানুষের কাছে নিজের পরিচয় করিয়ে দেয়।

শিক্ষা:
জীবনে যত বড়ই হোননা কেন, নিজের অতীত কখনো ভুলবেন না। যে জায়গা থেকে আপনি উঠে এসেছেন, যে পরিবেশ থেকে আপনি বড় হয়েছেন সেই পরিবেশকে সম্মান করুন, আপনার সম্মান আপনার মহানুভবতা এমনিতেই প্রকাশ পাবে, আপনার কাজের মধ্য দিয়ে।

What’s your Reaction?
+1
0
+1
1
+1
2
+1
2
+1
13
+1
0
+1
1

You May Also Like

About the Author: মোঃ আসাদুজ্জামান

Md. Ashaduzzaman is a freelance blogger, researcher and IT professional. He believes inspiration, motivation and a good sense of humor are imperative in keeping one’s happy.