Saturday, March 2, 2024
Homeঅনুপ্রেরণাশিক্ষামূলক গল্পদুনিয়াতে অধিকাংশ মানুষ অসুখী কেন?

দুনিয়াতে অধিকাংশ মানুষ অসুখী কেন?

raja ujir 1

একদিন এক রাজা তার উযিরকে বললো, আচ্ছা বলো তো, দুনিয়াতে অধিকাংশ মানুষ অসুখী কেন?

এই যে দেখো, আমার কর্তৃত্বে এতো বড় রাজ্য। কোন কিছুর অভাব নেই। তবুও কেমন জানি আমি মনের দিক থেকে সেই শান্তিটা পায় না। সবসময় অশান্তিতে কেন থাকি?

উযির কিছুক্ষন নিরব থেকে বলল, এই প্রশ্নের উত্তরের জন্য আপনাকে ছোট একটি কাজ করতে হবে।

রাজা বললেন, বলো, কী কাজ? উযির বলল, আপনি একটি থলেতে নিরানব্বইটি দিনার রাখুন। আর থলেটির উপরে লিখে দিন একশত দিনার। এরপর রাত্রিতে সেটা আপনার খাদেমের ঘরের সামনে ফেলে রাখুন।

উযিরের নির্দেশনা মতো রাজা সবকিছু করলেন। রাতে সেই খাদেম বের হল। দেখল একটি থলে পড়ে আছে। ঘরে নিয়ে দেখল তাতে গুণে গুণে নিরানব্বইটি চকচকে দিনার রয়েছে। এরপর লক্ষ্য করল সেই থলেতে লেখা আছে ‘একশত দিনার’।

এক দিনার না পেয়ে বেচারা ঘরের সবাই ঘুম থেকে জাগিয়ে তুলে ওই একটি দিনার খুঁজতে লাগিয়ে দিল। সারারাত চলল খোঁজাখুজি। কিন্তু পাওয়া গেল না।

এদিকে রাজা আর উযির আড়ালে দাঁড়িয়ে সব দেখল।

সকালে সেই খাদেম যখন রাজ দরবারে আসল রাজা দেখল, খাদেমের চেহারা মলিন। কোন বিরাট কিছু হারিয়ে যাওয়ার দুখে জর্জরিত যেন খাদেমের মন।

এবার উযির রাজাকে বলল, রাজা মশাই! ওই একের জন্যই আমরা এতো অসুখী। আল্লাহ আমাদেরকে যত নেয়ামত দিয়েছেন তা হলো নিরানব্বইটি দিনারের মতো। আমরা সেগুলো নিয়ে তুষ্ট থাকি না। শোকরিয়া আদায় করি না।
কি পেয়েছি, আল্লাহ কত দিয়েছেন, সেই হিসাব আমরা ততটুকু করি না, যতটুকু না পাওয়া/ মনের আশা অপুরনের হিসাব টুকু করি।

ওই অপূর্নতার দিকে মননিবেশ টা আমরা এত কঠিন ভাবে করে ফেলি যে, পাওয়ার হিসাব টুকু আর মনেই থাকে না। যার কারনে সব দিকে শুধু বারবার অপুর্নটাই চোখে পড়ে।

রাজা মশাই! আমরা যদি আল্লাহ পাকের দেয়া অসংখ্য নেয়ামত নিয়ে একটু মনযোগ দেয়, তাহলে অশান্তির ছোঁয়া ও আমাদের স্পর্শ করতে পারবে না।

তখন বারবার মনে হবে, আল্লাহ পাক তো আমি না চাইতেই তো আমাকে অনেক দিয়েছেন।

আপনি একটিবার বিশ্বাস করুন, আপনি অনেক ভালো আছেন,দেখবেন, আপনি সত্যিই অনেক ভালো আছেন।

Anuprerona
Anupreronahttps://www.anuperona.com
Read your favourite literature free forever on our blogging platform.
RELATED ARTICLES

Most Popular

Recent Comments