যে সকল খাবারের পর পরই পানি পান করা উচিত না!

যেসব খাবারের পর পানি পান করা ঠিক নয়

বিশুদ্ধ পানির অপর নাম জীবন। শরীরকে সুস্থ রাখতে ও রোগ প্রতিরোধ করার জন্য প্রতিদিন পানির প্রয়োজন হয়। প্রাপ্তবয়স্ক ও কর্মক্ষম নারী-পুরুষের দিনে অন্তত ৩ থেকে ৪ লিটার পানি খাওয়া দরকার। তবে আবহাওয়া ও শারীরিক শ্রমের ওপর পানি পান নির্ভর করে। কিন্তু মুশকিলটা হলো, যখন-তখন পানি খেলে হবে না। বিশেষ কয়েকটি খাবার খাওয়ার পর পানি একদমই খাবেন না। জেনে নিন কোন কোন খাবারের পর গ্লাসে চুমুক দেবেন না।

ফল খাওয়ার পর

যেকোনো ফল খেয়ে সঙ্গে সঙ্গে পানি খাবেন না। কারণ, ফলে ৮০ থেকে ৯০ শতাংশ পানি থাকে। এছাড়া আরো নানান উপাদানের মধ্যে থাকে চিনি, সাইট্রিক অ্যাসিড। তাই ফল খাওয়ার পর পর পানি খেলে কাশি হতে পারে। এমনকি পেটের সমস্যাও দেখা দিতে পারে। তাই, যে ফলই খান না কেন, তার অন্তত মিনিট ৪৫ পর পানি খাবেন।

চা-কফি পানের পর

বাঙালির কাছে সবচেয়ে জনপ্রিয় পানীয় হলো চা। সকাল-বিকাল-রাত চা পানের কোনো সময় যেনো নেই! সাথে আছে কফি পান। এই পানীয় দুটি সাধারণত খুব গরম বা ঠাণ্ডা খেয়ে থাকেন অনেকেই। এর কারণে হজম প্রক্রিয়া খানিকটা ধীরে হয়। তাই ঠাণ্ডা বা গরম যে ভাবেই চা-কফি পান করেন না কেন, সঙ্গে সঙ্গে পানি পান করবেন না। তাহলে হজমে গোলমাল হতে পারে।

ছোলা খাওয়ার পর

ছোলা খাওয়ার পর পর কখনো পানি খাওয়া ঠিক নয়। কারণ ছোলা হজম করার জন্য অনেকটা গ্যাস্ট্রাইটিস দরকার হয়। এটার পরিমাণ কমে যায় পানি খেলে। ফলে ছোলা হজম হতে সময় বেশি লাগতে পারে। এতে পেটের গোলমাল হতে পারে। তাই ছোলা খাওয়ার পর অন্তত মিনিট ২০ থেকে ২৫ পর পানি খাওয়া উচিত।

আইসক্রিম খাওয়ার পর

আইসক্রিম খাওয়ার পর কী পানির পিপাসা কমে যায়? অনেকেই এর উত্তরে বলেন না। তবে গরমে প্রশান্তি এনে দেয়। কিন্তু আইসক্রিম খাওয়ার পর সঙ্গে সঙ্গে পানি খাওয়া ঠিক নয়। এতে উপকার তো হবেই না উল্টো ক্ষতি হতে পারে। আইসক্রিম খাওয়ার পর পর পানি খেলে অনেকের দাঁত শিরশির করে। দাঁতের জোরও কমতে পারে। পাশাপশি গলা ব্যথাও হতে পারে। তাই আইসক্রিম খাওয়ার পর অন্তত ১৫ মিনিট পরে পানি খাওয়া উচিত।

What’s your Reaction?
+1
0
+1
0
+1
1
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

You May Also Like