আমার বাঘ শিকার - শিবরাম চক্রবর্তী

আমার বাঘ শিকার – শিবরাম চক্রবর্তী

মুখের দ্বারা বাঘ মারা কঠিন নয়। অনেকে বড় বড় কেঁদো বাঘকে কাঁদো কাঁদো মুখে আধমরা করে ঐ দ্বারপথে এনে ফেলেন। কিন্তু মুখের দ্বারা ছাড়াও বাঘ মারা যায়। আমিই মেরেছি। মহারাজ…

জয়ন্ত কাকুর পেইন্টিং - মুহম্মদ জাফর ইকবাল

হ্যাকার – মুহম্মদ জাফর ইকবাল

বসার ঘরে দাদি বসে টেলিভিশন দেখছেন, কী কারণে তার পায়ের গোড়ালিতে ব্যথা এবং সেটা নিয়ে ঝুমু খালার উৎসাহের সীমা নেই। কী একটা গাছের পাতা হেঁচে ঝুমু খালা দাদির পায়ে মাখিয়ে…

শিকারি - মুহম্মদ জাফর ইকবাল

শিকারি – মুহম্মদ জাফর ইকবাল

সানি ডাইনিং টেবিলে বসে ট্রনকে বলল, ‘আমাকে এক কাপ গরম কফি দাও। কুইক।’ ট্রন সানির কাজকর্মে সাহায্য করার জন্য সদ্য কিনে আনা একটা গৃহস্থালি রোবট। সে বলল, ‘গরম কথাটি খুবই…

ভূতের ছেলে - লীলা মজুমদার

ভূতের ছেলে – লীলা মজুমদার

রাত যখন ভোর হয়ে আসে তখন ওই তিন-বাঁকা নিম গাছটায় হুতুম প্যাঁচাটারও ঘুম পায়। নেড়ু দেখেছে ওর কান লোমে ঢাকা, ওর চোখে চশমা, ওর মুখ হাঁড়ি। হুতুমটা কেন যে চিল-ছাদের…

জাপানী কৈমাছ - হুমায়ূন আহমেদ

নারিকেল-মামা – হুমায়ূন আহমেদ

তার আসল নাম আমার মনে নেই। আমরা ডাকতাম ‘নারকেল-মামা। কারণ নারকেল গাছে উঠে নারকেল পেড়ে আনার ব্যাপারে তাঁর অসাধারণ দক্ষতা ছিল। পায়ে দড়ি-টরি কিছু বাঁধতে হত না। নিমিষের মধ্যে তিনি…

গোবর বাবু - হুমায়ূন আহমেদ

গোবর বাবু – হুমায়ূন আহমেদ

নীলগঞ্জ হাইস্কুলের ড্রিল স্যারের নাম ইয়াকুব আলি। বয়স পঞ্চাশের উপর। বেঁটে-খাটো মানুষ। সাধারণত ড্রিল স্যারদের স্বাস্থ্য খুব ভালো হয়ে থাকে। ইয়াকুব আলি সাহেব ব্যতিক্রম। ভয়ংকর রোগা। বছরের বেশিরভাগ সময় পেটের…

সোনার পালক - সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়

সোনার পালক – সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়

আকাশ। হঠাৎ সেই আকাশ থেকে কী একটা পাক খেতে খেতে নীচের দিকে নেমে আসছে। ঠক করে বুকে এসে পড়ল। তুলে দেখল, এই এতবড় একটা সোনার পালক। ভীষণ সুন্দর! তার যে…

ঘড়ি - সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়

ঘড়ি – সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়

আমার একটা টেবিল ঘড়ি আছে। মেড ইন জার্মানি। ঘড়িটা আমি এক স্মাগলারের কাছ থেকে কিনেছিলুম। তখন আমার খুব দুঃসময়। আমার স্ত্রী অসুস্থ! চিকিৎসার জন্যে জলের মতো টাকা খরচ হচ্ছে। তবু…

আজ আছি কাল নেই - সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়

আজ আছি কাল নেই – সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়

কে, দীনবন্ধু নাকি? এখানে অন্ধকারে ঘাপটি মেরে বসে আছ? আরে ভবেশনাকি? তুমি এ সময়ে! কোথায় চললে? বাড়ি ঢুকলে না? আমার পাশ দিয়েই তো দুরমুশ করতে করতে গেলে, বেরিয়ে এলে কেন?…

ঝালমুড়ি - সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়

ঝালমুড়ি – সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়

এদিকে-ওদিকে তুমি অনেক বড় বড় স্কুল পাবে, বিশাল বাড়ি, মাঠ, গাছ, হ্যানা ত্যানা। আমাদের এই ছোট্ট মতো স্কুলটার কোনও তুলনা নেই। একেবারে গঙ্গার ধারে। পারঘাট। বড় বড় নৌকো এপার-ওপার করছে।…

কাচ - সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়

কাচ – সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়

ছেলেবেলায় আমি তো একটু দুষ্টু ছিলুম। সবাই বলত, ভীষণ দুষ্টু। একদণ্ড স্থির হয়ে বসতে জানে না। আমার মা বলতেন, ‘ওইটাকে নিয়েই হয়েছে আমার ভীষণ জ্বালা। সারাদিন আমার এতটুকু শান্তি নেই।’…

অন্নপ্রাশন - বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়

অন্নপ্রাশন – বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়

খোকার অবস্থা শেষ রাত হইতে ভালো নয়। কী যে অসুখ তা-ই কী ভালো করিয়া ঠিক হইল? জন্তিপুরের সদানন্দ নাপিত এসব গ্রামে কবিরাজি করে, ভালো কবিরাজ বলিয়া পসারও আছে। সে বলিয়াছিল,…