Sunday, May 19, 2024
Homeলেখক-রচনারচনা সমগ্রভূতনাথের ডায়েরি - অনীশ দেব

ভূতনাথের ডায়েরি – অনীশ দেব

ভূতনাথের ডায়েরি - অনীশ দেব

এক মিনিট, আপনাকে বলছি

‘ভূতনাথের ডায়েরি’-র জেনেসিসটা আপনাকে প্রথমে জানিয়ে দিই। সালটা ছিল ১৯৯৯। ‘দেব সাহিত্য কুটীর’-এর সর্বময় কর্তা ছিলেন অরুণচন্দ্র মজুমদার—যিনি ‘শুকতারা’ পত্রিকার অন্যতম প্রকাশক ছিলেন। সেই ‘অরুণদা’ একদিন ফোন করে বললেন, ‘অনীশবাবু, একদিন আমার দপ্তরে একটু আসবেন? একটু দরকার ছিল—।’

সুভদ্র অরুণদা এরকমই ছিলেন। বহুবার আপত্তি করা সত্ত্বেও আমার শুভনামের লেজে ‘বাবু’ জুড়ে দেওয়ায় কখনও ক্ষান্ত হননি। আর তার সঙ্গে ‘আপনি’।

তো দেখা করতে গেলাম। অরুণদা বললেন, ‘সামনের মাস থেকে প্রতিমাসে ”নবকল্লোল” পত্রিকায় একটা করে ভূতের গল্প লিখতে হবে।’

ভয় পেয়ে গেলাম। আমি কি পারব?

প্রশ্নের উত্তরটা ঠিকঠাকভাবে ভেবে ওঠার আগেই তিনি বললেন, ‘কী ভাবছেন? আপনি ঠিক পারবেন।’

ব্যস, নির্বাহী সম্পাদককে তিনি পরিকল্পনার কথা জানিয়ে দিলেন। এবং পরের মাস থেকে ‘নবকল্লোল’ পত্রিকায় শুরু হয়ে গেল ‘ভূতনাথ’-এর গল্পের সিরিজ। ১৯৯৯ থেকে ২০০০ সালের মধ্যে এগারো মাসে দশটি গল্প প্রকাশিত হয়েছিল (একটি সংখ্যায় আমার লেখা দিতে দেরি হয়েছিল, তাই এগারোয় দশ)। পত্রিকায় প্রকাশের ক্রম অনুসারে গল্পগুলো বইয়ে সাজানো হয়েছে।

২০০১ সালে প্রথম প্রকাশের সময়ে প্রয়াত শিল্পী সমীর সরকার—আমার কাছে ‘সমীরদা’—বইয়ের সমস্ত ছবি এঁকে দেন। সম্পর্কের টানে ব্যক্তিগতভাবে ছবিগুলো তিনি আমাকে এঁকে দেন। এই ঘটনায় ‘ভূতনাথের ডায়েরি’-র প্রথম প্রকাশকের কোনওরকম ভূমিকা ছিল না।

সমীর সরকারের ছবিগুলো এতই মনোহর যে, সেগুলো ছাড়া ‘ভূতনাথের ডায়েরি’-কে আমার পক্ষে ভাবা সম্ভব নয়। সেইজন্যই এখন বইটির যে-সংস্করণ, প্রকাশিত হচ্ছে তাতেও অনীশ দেব ও সমীর সরকারের যুগলবন্দি।

বইটি নতুন করে প্রকাশের উদ্যোগে ‘বইতরণী’ সেই ত্রিদিবকুমার চট্টোপাধ্যায়। পত্রভারতীর বরুণ রায় বইটি সাজানোর কাজে যথেষ্ট অভিনবত্ব দেখিয়েছেন।

এবার ‘দেখা যায় না, শোনা যায়’।

‘দেখা যায় না, শোনা যায়’ উপন্যাসটির প্রথম পর্ব কিশোর ভারতীর শারদীয়া ১৪১৮-তে প্রকাশিত হয়েছিল। পুজো সংখ্যায় অর্ধেক উপন্যাস প্রকাশ করার বকুনি হিসেবে এক পাঠক রসিকতা করে চিঠিতে জানিয়েছিলেন, ‘এরকম দেখাও যায় না, শোনাও যায় না।’ অপরাধ স্বীকার করে নিয়ে জানাই, উপন্যাসটির শেষ অংশ প্রকাশিত হয় কিশোর ভারতীর শারদীয়া ১৪১৯-এ।

বই প্রকাশের সময় লেখাটি যথাসাধ্য পরিবর্ধন ও পরিমার্জন করেছি।

সুতরাং ‘নতুন’ ‘ভূতনাথের ডায়েরি সম্পূর্ণ’ এখন আপনার হাতে। সেইসঙ্গে আমার লেখালিখির গুণমানের বিচারও।

অনীশ দেব
১৭ এপ্রিল, ২০২১

সূচিপত্র :

Anuprerona
Anupreronahttps://www.anuperona.com
Read your favourite literature free forever on our blogging platform.
RELATED ARTICLES

Most Popular

Recent Comments