হযরত বায়েজিদ বোস্তামী ও কুকুরের ঘটনা

হযরত বায়েজিদ বোস্তামী ও কুকুরের ঘটনা

একবার হযরত বায়েজিদ বোস্তামী কোন এক জায়গায় যাচ্ছিল। পথে সামনের দিক থেকে একটি কুকুর আসতে দেখলেন।

যখন কুকুরটি তার পাশ দিয়ে যাচ্ছিল, তখন তিনি কাপড় সংযত করে নিলেন, যাতে কুকুরটি গায়ে না লাগে। কুকুরটি দাড়িয়ে গেল এবং হযরত বায়েজিদকে বলল, হুযুর, আপনি কেন কাপড় সরিয়ে নিলেন? তিনি বললেন, তুৃমি নাপাক।

কুকুর বলল, হুযুর, আমার কারণে যদি আপনার কাপড় নাপাক হয়, তাহলে তা পানি দিয়ে ধুলে পাক হয়ে যাবে। আর যদি আমাকে উৎকৃষ্ট মনে করে অহংকারের বসবর্তী হয়ে কাপড় সরিয়ে নেন তাহলে আপনার অন্তরে যে গর্ব ও অহংকারের যে নাপাকি সৃষ্টি হবে, সেটা সাত সাগরের পানি দিয়ে ধলেও পাক হবে না। হযরত বায়েজিদ কুকুরের এ কথা শুনে বললেন, তুমিই ঠিকই বলছ।

বাস্তবিকই তুমি অপবিত্র কিন্তু অহংকারী মানুষ ভিতরে অপবিত্র।তিনি আরুও বললেন, হে কুকুর! তোমার কাছ থেকে বড় শিক্ষা পেলাম। চল, তুমি আর আমি এক সাথে থাকি। কুকুর বলল, হুযুর আপনি আমার সাথে থাকতে পারেন না, কারণ, আমি হলাম নিকৃষ্ট প্রাণী।

আমাকে দেখলে সবাই পাথর মারে আর আপনি হলেন আল্লাহর মকবুল বান্দা। আপনাকে দেখলে সবাই সালাম দেয়, বা সুলতানুল আরেফিন বলে।

তাছাড়া আমি আগামী কালের জন্য হাড্ডি সংগ্রহ করে রাখি না কিন্তু মানুষ শষ্যদানা সংগ্রহ করে রাখে। হযরত বায়েজিদ বলল,হে কুকুর! তোমার কথাগুলো খুবই শিক্ষনীয়।

You May Also Like