গুহা - শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়

গুহা – শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়

একটি গুহার অভ্যন্তর। পিছন দিকে পাথরের গায়ে আঁকাবাঁকা ফাটল রহিয়াছে, উহাই গুহার প্রবেশ-পথ। ফাটল দিয়া দেখা যায় বাহিরে অবিশ্রান্ত বৃষ্টি পড়িতেছে, মাঝে মাঝে বিদ্যুৎ চমকাইয়া মেঘ ডাকিতেছে। গুহার ভিতরে মলিন স্যাঁতা আলোয়…

ঘড়িদাসের গুপ্তকথা - শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়

বিজ্ঞাপন বিভ্ৰাট – শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়

সংবাদপত্র পাঠ করিতেছিল এবং সিগারের প্রভুত ধূমে ঘরটি প্রায়ই অন্ধকার করিয়া ফেলিয়াছিল। বেলা প্রায় সাড়ে সাতটা, এমন সময় বন্ধু প্রমথনাথ ঘরে ঢুকিয়াই অতি কষ্টে কাশি চাপিতে চাপিতে বলিল, পর্বতো বহ্নিমান ধূমাৎ। তুমি…

পিছু পিছু চলে - শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়

পিছু পিছু চলে – শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়

সত্যবান গজাধর সিন্ধে বললেন, আপনি কখনো ভূত দেখেছেন? চুপ করে রইলাম। যারা ভূত দেখেছে তারা অন্যকে ভূত দেখাতে পারে না, সুতরাং নাস্তিকদের কাছে হাস্যাস্পদ হয়। আজকাল নাস্তিকদের যুগ চলেছে, অতএব সাবধানে থাকা…

ঘড়িদাসের গুপ্তকথা - শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়

বড় ঘরের কথা – শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়

নিম্নোক্ত কাহিনীটি আমি শুনিতে পাইতাম কি না সন্দেহ, যদি না সে রাত্রে গ্রামের জমিদারবাবুর বাড়িতে নিমন্ত্রণ থাকিত। আমি গ্রামে নবাগত, কিন্তু জমিদার মহাশয় তাঁহার কন্যার বিবাহে গ্রামসুদ্ধ লোককে নিমন্ত্রণ করিয়াছিলেন, আমিও বাদ…

কামিনী - শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়

কামিনী – শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়

স্টেশনে ট্রেন থামিতেই হ্যাট-কোট পরা সুরনাথবাবু নামিয়া পড়িলেন। স্টেশনটি ছোট, তাহার সংলগ্ন জনপদটিও বিস্তীর্ণ নয়। ট্রেন দুমিনিট থামিয়া চলিয়া গেল। সুরনাথ ঘোষ একজন পোস্টাল ইন্সপেক্টর। সম্প্রতি এদিকটার গ্রামাঞ্চলে কয়েকটি নূতন পোস্ট অফিস…

ঘড়িদাসের গুপ্তকথা - শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়

অবিকল – শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়

নিজের অতীত জীবনের কথা আমার মনে বেশী আসে না। কিন্তু পুণার নিঃসঙ্গ জীবনযাত্রার ফলে মনটা মাঝে মাঝে ফাঁকা হয়ে যায়, তখন সেই শূন্য স্থানটা ভরাট করার জন্যে মনের অন্ধকার। কোণ থেকে দু-একটা…

ঘড়িদাসের গুপ্তকথা - শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়

ফকির-বাবা – শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়

মনে পড়ল পঁয়ত্রিশ বছর আগেকার কথা। আমি তখন মুঙ্গেরে ওকালতি করি। আমার বাবা জেলা কোর্টের বড় উকিল ছিলেন, তাঁর গুটি তিন-চার জুনিয়র। আমি ছিলাম তাঁদের মধ্যে সর্বকনিষ্ঠ। কাজকর্ম বিশেষ করতাম না; বাবার…

কিষ্টোলাল - শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়

কিষ্টোলাল – শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়

হরিবিলাসবাবুর ছেলে রামবিলাস বার দুয়েক ম্যাট্রিক ফেল করে বাড়ি থেকে ফেরার হয়েছিল। হরিবিলাসবাবু আমাদের পাড়াতেই থাকতেন; শরীর বাতে পঙ্গু কিন্তু পয়সা কড়ি আছে। ঘরে বসে যতদূর সম্ভব ছেলের খোঁজ-খবর করলেন, কলকাতার কাগজে…