মহিলাদের একটি দ্বীনি জলসায় শিক্ষণীয় ঘটনা

মহিলাদের একটি দ্বীনি জলসায় শিক্ষণীয় ঘটনা

আরবের একজন মহিলা, যিনি মহিলাদের মাঝে দ্বীন প্রচার করেন, তিনি মহিলাদের একটি দ্বীনি জলসায় দারস রাখতে গিয়ে বলছিলেন, একজন উত্তম স্ত্রীর উচিত তার স্বামীকে একাধিক বিয়ের সুন্নাত পালন করতে অনুপ্রাণিত করা এবং তাকে এই নেক কাজে সাহায্য করা।

একথা শুনে “রাবিহা” নামে একজন মহিলা তার কাছে এসে তাকে জড়িয়ে ধরে বলেন, আল্লাহ তোমার উপর রহম করুন, তোমাকে শান্তি দিন… জানিনা কিভাবে আমি তোমাকে কথাটি বলবো। তবে আল্লাহর কাছে শুকরিয়া যে তুমি ব্যাপারটি বুঝতে পেরেছো। আমি এবং তোমার স্বামী চার বছর যাবত বিবাহবন্ধনে আছি কিন্তু এতদিন আমরা তোমাকে বিষয়টি বলতে পারিনি।

একথা শুনে বক্তা মহিলাটি হতবাক হয়ে গেলো। চিৎকার করে উঠলো এবং সে অজ্ঞান হয়ে পড়ে গেলো।

তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলো। যখন তার জ্ঞান ফিরলো তখন “রাবিহা” নামের মহিলাটি তাকে বললো, আল্লাহর কসম! আমি তোমার স্বামীকে চিনিনা এবং কখনো দেখিনি। আমি শুধু দেখতে চেয়েছি এটা শুনে তুমি কী করো। আর আমার পরামর্শ হলো, তুমি নামাজ-রোজা, পিতামাতার প্রতি কর্তব্য ইত্যাদি বিষয়ে মানুষকে উপদেশ দাও। কিন্তু নিজে যা পালন করতে পারোনা, তা মানুষকে বলতে যেওনা।

এরপর সেই বক্তা মহিলা তার চাকরি ছেড়ে দিল।

শিক্ষাঃ যতক্ষণ না বিপদ নিজের ওপর আসে ততক্ষণ ব্যাপারটা তেমন গুরুতর মনে হয়না!!

Facebook Comment

You May Also Like