ছায়া ছায়া ভূত - সায়ন্তনী পূততুন্ড

ছায়া ছায়া ভূত – সায়ন্তনী পূততুন্ড

–ডাক্তারবাবু……আমি কি বেঁচে আছি? প্রশ্নটা শুনে ডাক্তারবাবুর ভুরুতে সামান্য ভাঁজ পড়ল। মাথার উপরে একটা টিমটিমে আলো জ্বলছে। তাতে সামনের মানুষটাকে স্পষ্ট দেখতে না পেলেও তার অস্পষ্ট ছায়া ছায়া অবয়ব বোঝা যাচ্ছিল। নাকের…

ডাকিনিতন্ত্র - স্বপ্নময় চক্রবর্তী

ডাকিনিতন্ত্র – স্বপ্নময় চক্রবর্তী

স্কুল সার্ভিস কমিশনের পরীক্ষা দিয়ে চাকরি পেয়েছে সরসিজ পণ্ডা। লোধাশুলির চরণ দাস সিংহ উচ্চ বিদ্যালয়ে পোস্টিং। সরসিজের দেশের ঘর বালিচক-এ। বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফিজিক্স-এ এম এস সি। বালিচক অঞ্চলে গণবিজ্ঞান আন্দোলন করে,…

ছদ্মবেশ – সাদাত হোসাইন

চুন্নু মিয়ার সামনে বসে (ছদ্মবেশ-৪) – সাদাত হোসাইন

চুন্নু মিয়ার সামনে বসে আছে আছিয়া। তার পাশে দাঁড়ানো সোহরাব মোল্লা। সোহরাব মোল্লা বলল, যা যা শিখাই দিছে ঠিকঠাক মতো বলতে পারবিতো? জে, পারব। কী বলবি? বলব সে আমারে দুই বছর ধইরা…

ছদ্মবেশ – সাদাত হোসাইন

খুন (ছদ্মবেশ-৩) – সাদাত হোসাইন

লতিফুর রহমান মানসিকভাবে পুরোপুরি ভেঙে পড়েছেন। সেদিন থানায় রেজার সামনে তিনি শেষ পর্যন্ত হাউমাউ করে কেঁদেছেন। কাঁদতে কাঁদতেই তিনি বলেছিলেন, বিশ্বাস করুন, আমি খুনটা করিনি। এমনকি ছেলেটাকে আমি চিনিও না। আমি একা…

ছদ্মবেশ – সাদাত হোসাইন

গোলাম মাওলা ধীর-স্থির মানুষ (ছদ্মবেশ-২) – সাদাত হোসাইন

গোলাম মাওলা ধীর-স্থির মানুষ। কঠিন বিপদেও মেজাজ হারান না। শান্ত গলায়, হাসিমুখে কথা বলেন। এই কারণেই খুব দ্রুত তিনি সাধারণ মানুষের কাছে প্রিয় হয়ে উঠেছেন। তিনি যে রাজনীতির সঙ্গে খুব বেশিদিন যুক্ত,…

ছদ্মবেশ – সাদাত হোসাইন

বাড়ির নাম অপেক্ষা (ছদ্মবেশ-১) – সাদাত হোসাইন

ভূমিকা মানুষ রহস্যময়তা পছন্দ করে। কিন্তু বেশিরভাগ সময়ই সে সেটা বুঝতে পারে না। জীবনভর সে তার প্রিয়তম মানুষটিকেও পুরোপুরি বুঝে ফেলতে চায়, কিন্তু পুরোপুরি বোঝা হয়ে গেলে তার প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলে।…

কালসন্ধ্যা - মনোজ সেন

চতুরঙ্গ – মনোজ সেন

বিকেলের পড়ন্ত আলোয় চ্যাটার্জি পাড়ার বিনানি হাউসের সামনে সুব্রত রায়ের স্টেশন ওয়াগনটা এসে দাঁড়াল। সকলের আগে গাড়ি থেকে নেমে হৈমন্তী বাড়িটার সামনে গিয়ে দাঁড়াল। অনেকক্ষণ ধরে চোখ কুঁচকে দেখল বাড়িটা। নীচু পাঁচিল…

কালসন্ধ্যা - মনোজ সেন

বাসুকির অভিশাপ – মনোজ সেন

অনেক বছর আগে, সম্ভবত ১৯৫৮ সালে আমাকে একবার বীরভূম জেলার বাঘেরহাট বলে একটা গ্রামে যেতে হয়েছিল। আমি তখন চাটার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট বোস অ্যান্ড ঘোষ অ্যাসোসিয়েটস-এ আর্টিকল্ড ক্লার্ক ছিলুম। আমার অফিস আমাকে বাঘেরহাটে পাঠিয়েছিল…

কালসন্ধ্যা - মনোজ সেন

পিশাচ – মনোজ সেন

বেলা দুটো নাগাদ তন্ময় চ্যাটার্জি আর তাঁর স্ত্রী মনীষা মালদা শহর থেকে রূপনগর গ্রামের দিকে রওনা হয়েছিলেন। ঘণ্টা দুয়েকের রাস্তা, ওঁদের আশা ছিল যে কলকাতা থেকে ওঁদের ফিলম ইউনিটের বাস ওখানে আসবার…

কালসন্ধ্যা - মনোজ সেন

কালসন্ধ্যা – মনোজ সেন

সেদিন রবিবার। দুপুর গড়িয়ে বিকেল হবার মুখে। বাইরে ঝিমঝিম করছে শরতের রোদ। আমরা ক্লাবঘরে বসে আড্ডা দিচ্ছি। আমাদের মধ্যে কয়েক জনের দুপুরের খাওয়াটা একটু বেশি হয়ে গেছে, তাই তারা একটা টেবিলের ওপর…

চারকোণা বাক্স - চিত্তরঞ্জন মাইতি

চারকোণা বাক্স – এডগার অ্যালান পো

বেশ কয়েক বছর আগের কথা। আমি নিউইয়র্ক যাবার জন্য চার্লেস্টন থেকে ক্যাপ্টেন হার্ডির ‘ইণ্ডিপেন্সে’ জাহাজে টিকিট কেটেছি। আবহাওয়া ভালো থাকলে জুনের পনেরো তারিখে আমাদের রওনা হবার কথা তাই চোদ্দ তারিখেই আমি জাহাজে…

চিঠি - শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়

চিঠি – শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়

ভূতটাকে আমি দেখেছিলাম পুরোনো পোস্ট–অফিসের বাড়িতে। সেই থেকে ভূতের গল্পটা সবাইকে বলে আসছি, কেউ-কেউ বিশ্বাস করছে, কেউ কেউ করছে না। নদীর একটা দিক ভাঙতে ভাঙতে শহরের উত্তর দিকটা অনেকখানি গিলে ফেলল। পুরোনো…