শুঁড়ওয়ালা বাবা - শিবরাম চক্রবর্তী

শুঁড়ওয়ালা বাবা – শিবরাম চক্রবর্তী

বই-টই গুছিয়ে নিয়ে বেরুবার উদ্যোগ করছে, এমন সময়ে দাদামশাই ডেকে বললেন–আজ আর স্কুল যেতে হবে না। তোর গুঁড়-ওলা বাবা আসচেন, দুপুরে এসে পৌঁছনর তার পেয়েছি। আজ আবার মেল ডে, আমার তো আপিস…

পরোপকারের বিপদ - শিবরাম চক্রবর্তী

পরোপকারের বিপদ – শিবরাম চক্রবর্তী

আমার বন্ধু নিরঞ্জন ছোটবেলা থেকেই বিশ্বহিতৈষী–ইংরেজীতে যাবে বলে ফিলানথ্রপিস্ট। এক সঙ্গে ইস্কুলে পড়তে ওর ফিলানথ্রিপিজমের অনেক ধাক্কা আমাদের সইতে হয়েছে। নানা সুযোগে দুর্য্যোগে আমাদের হিত করবেই, একেবারে বদ্ধপরিকর–আমরাও কিছুতেই দেব না ওকে…

হর্ষবর্ধনের কাব্যচর্চা - শিবরাম চক্রবর্তী

হর্ষবর্ধনের কাব্যচর্চা – শিবরাম চক্রবর্তী

বাড়ির দরজায় কে যে এক-পাল ছাগল বেঁধে গেছল, তাদের চাঁ-ভা পাড়াটা মাত। হর্ষবর্ধন তখন থেকে উঠে-পড়ে লেগেছেন, কিন্তু মনই মেলাতে পারছেন না, তা কবিতা মেলাবেন কী! দূর ছাই! বিরক্ত হয়ে বলেছেন হর্ষবর্ধন,…

ঘোড়ার সঙ্গে ঘোরাঘুরি - শিবরাম চক্রবর্তী

ঘোড়ার সঙ্গে ঘোরাঘুরি – শিবরাম চক্রবর্তী

আর কিছু না, একটু মোটা হতে শুরু করেছিলাম, অমনি মামা আমার ব্যস্ত হয়ে পড়লেন। বললেন–সর্বনাশ! তোর খুড়তুতো দাদামশাই–কী সর্বনাশ! কথাটা শেষ করবার দরকার হয় না। আমার মাতুলের খুড়ো আর জ্যেঠা স্থূলকায়তায় সর্বনাশের…