অন্ধকার সিঁড়ি (অশরীরী আতঙ্ক) - মানবেন্দ্র পাল

ডাঃ রুদ্রের ছবিপ্রীতি (অশরীরী আতঙ্ক -৫) – মানবেন্দ্র পাল

মাস তিনেক পর। অনেক চেষ্টায় মানিকতলার কাছে ওরা দুখানা ঘর পেয়েছে। মান্তুদের বাড়িতে কিছুদিন থেকে এখন ওরা এই নতুন বাড়িতে এসেছে। এখানে এসে ওরা নিশ্চিন্ত। রীণা সম্পূর্ণ সুস্থ। ভয়টয় আর পায় না।…

অন্ধকার সিঁড়ি (অশরীরী আতঙ্ক) - মানবেন্দ্র পাল

কাটা ঘায়ে নুনের ছিটে (অশরীরী আতঙ্ক -৪) – মানবেন্দ্র পাল

 শীতের বিকেল। কম্পাউন্ডের মধ্যে লাঠি হাতে বার পাঁচেক পাক দিয়ে অমৃতবাবু বেঞ্চিতে এসে বসলেন। ওপাশে আপাদমস্তক চাদর মুড়ি দিয়ে বেঞ্চির ওপর পা তুলে বসেছিলেন বিভূতিবাবু। পাশে মহিমাবাবু। গায়ে পুরনো একটা অলেস্টার। মাথায়…

অন্ধকার সিঁড়ি (অশরীরী আতঙ্ক) - মানবেন্দ্র পাল

মিস থাম্পি (অশরীরী আতঙ্ক -৩) – মানবেন্দ্র পাল

 সাতাশে নভেম্বর।  মিস থাম্পি এসেছেন। রীণাও এসেছে। রীণাকে মান্তুই নিজে গিয়ে নিয়ে এসেছে। একদিন থাকবে। আসল উদ্দেশ্য মিস থাম্পির মতো মানুষ যখন আসছেন তখন রীণাকে একবার দেখিয়ে নেওয়া। মিস থাম্পি তো সারাজীবন…

অন্ধকার সিঁড়ি (অশরীরী আতঙ্ক) - মানবেন্দ্র পাল

আবার রহস্য (অশরীরী আতঙ্ক -২) – মানবেন্দ্র পাল

আবার সেই নিঃসঙ্গ দুপুর। সকালবেলায় সঞ্জয় চলে গেছে। তারপর রীণা পুপুকে স্নান করাল, খাওয়ালো, ঘুম পাড়াল। এক ফাঁকে নিজের নাওয়া-খাওয়াও সেরে নিল। সব চুকতে ঢুকতে বেলা একটা। এই পর্যন্ত বেশ কাটে। এর…

অন্ধকার সিঁড়ি (অশরীরী আতঙ্ক) - মানবেন্দ্র পাল

অন্ধকার সিঁড়ি (অশরীরী আতঙ্ক -১) – মানবেন্দ্র পাল

ভূমিকা ভূত অনেকেই বিশ্বাস করেন না। কিন্তু ভূতের গল্প পড়তে ছোটো বড়ো কে না ভালোবাসে। ভালোবাসার কারণ, মানুষ গল্প শোনার মধ্যে দিয়ে একটু ভয় পেতে চায়। সংস্কৃত অলংকার শাস্ত্রে নটি স্থায়ী ভাব…

ভৈরব - মানবেন্দ্র পাল

ভৈরব – মানবেন্দ্র পাল

ছোটনাগপুরের পাহাড়-ঘেরা এই ছোট্ট জায়গাটায় সেদিন যেন ধূসর সন্ধ্যা কেমন একরকম গা-ছমছম-করা রহস্যময় রোমাঞ্চ নিয়ে নেমে এসেছিল। এমনটা অন্যদিন হয় না। অন্যদিনও এই সময় ধূর্জটিবাবু সর্বাঙ্গে গরম চাদর জড়িয়ে, হাতে দস্তানা পরে…

ছত্রিশগড়ের ভাঙা গড় - মানবেন্দ্র পাল

গভীর রাতের আগন্তুক – মানবেন্দ্র পাল

বাড়িটার নাম মহলেশ্বরী। না, বাড়ি নয়, প্রাসাদ–জীর্ণ দোতলা প্রাসাদ। চুচড়ো থেকে আা, পঞ্চাননতলা, ভৈরবপুর ডিঙিয়ে ভস্তারার দিকে চেলে গেছে চমৎকার পিচঢালা রাস্তা। সারাদিন বাস যায় আসে। এ ছাড়া ছোটে লরি। মাঝে মাঝে…

ছত্রিশগড়ের ভাঙা গড় - মানবেন্দ্র পাল

ভর – মানবেন্দ্র পাল

অনেকেই আমাকে জিগ্যেস করে আমি কি সত্যিই বিশ্বাস করি ভূত বলে কিছু আছে? এ প্রশ্ন শুধু আজকের নয়, বহুকাল আগের। আর সত্যি কথা বলতে কি এ প্রশ্নের সঠিক উত্তর কেউ দিতে পারেনি।…

ছত্রিশগড়ের ভাঙা গড় - মানবেন্দ্র পাল

বামনের কঙ্কাল – মানবেন্দ্র পাল

সিঁড়িতে পায়ের শব্দ সেদিন অনেক রাতে অস্পষ্ট একটা শব্দে ঘুম ভেঙে গেল। ধড়মড় করে বিছানায় উঠে বসলাম। কৃষ্ণপক্ষ। খোলা জানলা দিয়ে দেখলাম চাঁদের ম্লান আলো লুটিয়ে পড়েছে বরাকর নদীর জলে। ওদিকে গভীর…

ছত্রিশগড়ের ভাঙা গড় - মানবেন্দ্র পাল

খুনী – মানবেন্দ্র পাল

দেবব্রত চৌধুরী মানুষটি এতই নিরীহ ভালোমানুষ যে বাইরের লোক আড়ালে আর তার ছেলেমেয়েরা মুখের সামনেই ভীতু বলে হাসাহাসি করে। দেব্রতবাবুর অবশ্য তাতে কিছু এসে যায় না। নিজের কাজটুকু নিয়মমতো মুখ বুজে করেই…

ছত্রিশগড়ের ভাঙা গড় - মানবেন্দ্র পাল

গভীর রাতের ভয়ঙ্কর – মানবেন্দ্র পাল

অশুভ সংকেত  এই বাগানবাড়িতে যেদিন জনার্দন তার স্ত্রী আর ছেলেকে নিয়ে একমাসের জন্যে বেড়াতে এল সেদিন ওদের আনন্দের পরিসীমা ছিল না। এক মাস এই ফাঁকা জায়গায় সবুজ প্রকৃতির কোলে প্রাণভরে নিশ্বাস নিয়ে…

ছত্রিশগড়ের ভাঙা গড় - মানবেন্দ্র পাল

আতংক যখন হিলিতে – মানবেন্দ্র পাল

পাহাড়ি রাস্তায় হাজার ঝুঁকি নিয়ে গাড়ি চালাতে হয়। খুব অভিজ্ঞ ড্রাইভার না নিলে বিপদের সম্ভাবনা। তা আমাদের ড্রাইভার বিক্রম থাপা ভালোই গাড়ি চালাচ্ছে। ‘শার্প কার্ড’ এর মতো বিপদসংকুল জায়গাগুলোও গোঁয়ার ড্রাইভারের মতো…