মস্তিষ্ককে শক্তিশালী বানানোর উপায় কি?

brain
ঘুমোনোর আগে নতুন কিছু শেখা-রাতে শোওয়ার আগে নতুন কিছু শেখার চেষ্টা করুন। মনে করার চেষ্টা করুন সারাদিন কী করলেন। আর হ্যাঁ, পর্যাপ্ত ঘুমের বিকল্প নেই। নির্ঘুম শরীর অনেকাংশেই মনের ক্ষমতার উপর প্রভাব ফেলে। তাই ঘুম হতে হবে ঠিকঠাক।

নতুন কোনও কাজ শেখার চেষ্টা করা-নতুন কোনও কাজ শেখার চেষ্টা করলে স্মৃতিশক্তি বাড়ে। এই যেমন ধরুন আপনি হয়তো কাগজের প্লেন তৈরি করতে জানেন না। সেটা শিখে নিয়ে তৈরি করুন। কিংবা নতুন কোনও কাজ করতে শুরু করুন। স্মৃতিশক্তি এতে বাড়বে। মানসিক চাপ থেকে এড়িয়ে চলুন। মানসিক চাপ বাড়লে স্মৃতিশক্তি কমতে শুরু করে। বন্ধু ও পরিচিতজনের সংখ্যা বাড়ান এবং তাদের সাথে গড়ে তুলুন গঠনমূলক সুন্দর সামাজিক সম্পর্ক।

রুটিন করে মস্তিষ্ককে দিনের একটি বিশেষ সময় ব্যস্ত রাখা-রুটিন করে মস্তিষ্ককে দিনের একটা বিশেষ সময়ে ব্যস্ত রাখুন। যেমন ধরুন প্রতিদিন সকালে শব্দছকের খেলা অভ্যাস করুন। কিংবা ছেলে মেয়েদের পড়ানোর ফাঁকে নিজে একবার নামতটা মুখস্থ করুন।

প্রচুর পরিমাণ জল, দুধ খাওয়া-খাদ্যাভাসের সঙ্গে স্মৃতিশক্তির দারুণ একটা সম্পর্ক রয়েছে। ফাস্ট ফুড জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলুন। গোরুর দুধ, জল বেশি করে খান।

অফিস কিংবা কাজ থেকে বাড়ি ফেরা এক পথে নয়-একই পথে রোজ বাড়ি না ফিরে একটু অন্য পথে ফিরুন। একঘেঁয়েমি কোনও কাজ মস্তিষ্কের স্মৃতিশক্তি কমিয়ে দেয়। সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে অফিস কিংবা কাজ থেকে বাড়ি ফিরতে অন্য কোনও পথে বাড়ি ফিরলে স্মৃতিশক্তি বাড়ে।

নিজের প্রতিটি কাজ লিখে রাখার অভ্যাস–স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর একটা সহজ উপায় হল নিজের মত করে কাজের রুটিন তৈরি করা, আর সেটা পালন করা। রুটিন পালন করে কোনও কাজ করলে আমাদের মস্তিষ্ক অনেক বেশি মনে রাখতে পারে। আমরা যে কাজটা করেছি বা করব সে সবই যদি লিখে রাখি। কোন কাজটা করব আর কোন কাজটা করব না। বা কোন কাজটা করা হল বা করা হল না। সে সবই লিখে রাখলে সহজেই তা মনে থাকে।

উল্টো থেকে চিন্তা করুন- ১০০ থেকে ১ কিংবা ৫০০ থেকে ১ পর্যন্ত উল্টো করে চিন্তা করুন। আপনার মােবাইল নাম্বারটি উল্টো পাশ থেকে বলার চেষ্টা করুন । বাজার করবেন বলে একটা লিস্ট করেছেন , এবার লিস্টটির শেষেরটি থেকে প্রথমটি পর্যন্ত অর্থাৎ উল্টো থেকে আইটেমগুলাে মনে করার চেষ্টা করুন।

এভাবে আরাে অনেক কিছুই আপনি উল্টো শুরু করতে পারেন । গবেষণায় দেখা গেছে , উল্টো থেকে চিন্তা করা , কোন কিছু মুখস্থ করা এবং আবার মনে করার চেষ্টা করা ব্রেনের পাওয়ার বাড়িয়ে দেয় এবং স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি করে।

হাত বদল করে কাজ করুন— যারা ডান হাতে কাজ করেন , তারা এবার কিছু কাজ বাম হাতে করুন । আর যারা বিভিন্ন কাজ বাম হাতে করে থাকেন , তারা সেগুলাে ডান হাতে করার চেষ্টা । করুন। এ প্রক্রিয়াটি মাসে অন্তত একবার করতে পারেন । এটিও ব্রেনকে নতুন করে ফাংশন প্রসেস করতে সাহায্য করে এবং ব্রেনের শক্তি বাড়ায় । সুতরাং , মাঝে মাঝে হাত বদল করে কাজ করাটাও স্মৃতিশক্তি বাড়ানাের উপায় হিসেবে দারুণ কাজের।

চুইংগাম চাবান— কি,চুইংগাম চাবানাের কথা শুনে হাসি পেল?হ্যা চুইংগাম চাবানাের ফলে আপনার স্মৃতিশক্তি পূর্বের তুলনায় অধিক কার্যকরভাবে কাজ করতে শুরু করে। একটি গবেষণায় দেখা যায় যে,গবেষণায় অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে যারা চুইংগাম চাবানােতে অভ্যস্ত , তারা সাধারণ অংশগ্রহণকারীদের চাইতে মেমরি টেষ্ট পরীক্ষায় ২৫ শতাংশ বেশি ভালাে ফলাফল করতে সক্ষম হয়েছেন।

You May Also Like